দোলাচলে মধ্যবিত্ত

[responsivevoice_button voice=”Bangla India Female” buttontext=”Listen In Bengali(Play/Pause)”]

সাধারণ ভাষায় বলতে গেলে লকডাউন এর বন্দি দশাতেও যে আমরা ঘরে বসে পেট-পূজো করতে পারছি, তার একমাত্র দান কৃষক এবং সাধারণ শ্রমজীবী মানুষদের।তারা যদি কাজ বন্ধ করে নিজ ঘরে বন্দি থাকতো, তাহলে আমরা নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য থেকে বঞ্চিত হতাম।

আবার কিছু জায়গায় লকডাউন এর জন্য মানুষের কেনাবেচা কমেছে ফলে এই শ্রমজীবী মানুষ তাদের উৎপাদিত ফসল বিক্রি করতে পারছেন না ফলে এই দিন আনা দিন খাওয়া মানুষগুলি সমস্যায় পড়ছেন। তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সরকার তাদের বিনামূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য দিয়ে সাহায্য করছেন।

অন্যদিকে উচ্চবিত্ত মানুষের পুঁজি সঞিত থাকায় তাদের উপর এর কোনো প্রভাব পড়েনি। তাঁরাও যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছেন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর ।

মূল সমস্যার মুখে পড়ছে মধ্যবিত্ত মানুষেরা। যারা পার্ট টাইম জব করে দিনের শেষে রুজি রোজকার করে, যাদের একটা সার্কাসের সো এর পর মন বলে উঠত “আজ ভালোমন্দ খেতে পারবো”, যাদের একটা স্ট্যান্ডাপ কমেডি মানুষের মুখে বয়ে আনত হাসির ঝর্ণা এখন তারা কান্না ভেজা চোখে বলে উঠছে “কাল কীভাবে খাব”, সমস্যার মুখে সেইসব মানুষেরা যারা ছোট বড় শপিং মলে রোজকার করে ব্যবসা চালাতেন, চালাতেন কসমেটিক্স এর দোকান, তারা বলেন “খাদ্যের মজুত খুব কম, তাই অল্প অল্প করে খেতে হচ্ছে। “

এইসব মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য কেউ নেই। এই মধ্যবিত্তের খোঁজ কেউ নেয় না। তাঁরা ঈশ্বরের হাতেই তুলে দিয়েছেন তাঁদের ভাগ্য, শোপে দিয়েছেন প্রাণ।

জানিনা কবে এই প্রতিকূল অবস্থা থেকে মুক্তি পাব আমারা, তাও ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি বেঁচে থাক এই মানুষেরা, বেঁচে থাক তাদের স্বপ্ন।

 834 total views,  2 views today

2020-04-20

4 Comments

  1. YOU NEED QUALITY VISITORS FOR YOUR: therisingalert.in

    WE PROVIDE ORGANIC VISITORS BY KEYWORD FROM SEARCH ENGINES OR SOCIAL MEDIA

    YOU GET HIGH-QUALITY VISITORS
    – visitors from search engines
    – visitors from social media
    – visitors from any country you want

    CLAIM YOUR 24 HOURS FREE TEST => https://bit.ly/2V9Gsw2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *